ফরেক্স মার্কেট কি এবং কিভাবে একাউন্ট খুলবেন (নতুনদের জন্য)?

ফরেক্স সম্পর্কে অনেকরই ধারনা আছে, তবে যারা নতুন, আজ তাদের জন্য এই পোষ্ট। এখানে আমি ফরেক্স মার্কেট কি এবং কিভাবে একাউন্ট খুলবেন তা সংক্ষিপ্তভাবে তুলে ধরার চেষ্টা করবো।

ফরেক্স কি?

ফরেক্স একটি ট্রেডিং প্লাটফর্ম, যার পূর্ণ রূপ ফরেন মানি এক্সচেন্জ। যেখানে বিভিন্ন দেশের মুদ্রা এবং কমোডিটিস ( যেমন তৈল, গ্যাস, গ্লোড ইত্যাদি) ট্রেড করা হয়। এমনকি বর্তমানে ক্রিপ্টোকারেন্সিও ট্রেডি করা হয়। এমন কোন ব্যক্তি খুব কমই পাওয়া যাবে; যে, শেয়ার বাজারের কথা শুনেন নাই। আর শেয়ার বাজারের কথা শুনে থাকলে এই মার্কেট সহজেই বুঝতে পারবেন। তবে সম্পূর্ণ এক না; একটু ভিন্ন।

ফরেক্সে কিভাবে ট্রেডিং করা হয়?

কাছাকাছি লোকাল শেয়ার বাজার গুলোর মতো কেনা বেচা করতে হয়। তবে এই মার্কেট খুব বেশি রিক্সি; অন্য কোন লোকাল মার্কেট এর চাইতে। তবে ফরেক্সে যত দ্রুত প্রফিট হয় তা কখনোই লোকাল শেয়ার বাজার থেকে সম্ভব না। আর হ্যাঁ, এই মার্কেটে তত দ্রুতই লস হয়ে থাকে। আর ফরেক্স মার্কেটে গেইনার এর সংখ্যাটা খুবই কম, অর্থাৎ ফরেক্সে লসের সম্ভাবনা বেশি। কারন একটাই, এখানে যারা ট্রেড শুরু করেন তাদের বেশির ভাগ ট্রেডারই ট্রেড করেন আবেগ দিয়ে (ইমোশোনাল প্রবলেম)। আর লসের মূল কারনই হচ্ছে আবেগ।

যাইহোক, এখানে ট্রেড করার মূল উপদান হচ্ছে বিভিন্ন দেশের মুদ্রা। ফরেক্স মার্কেটে, একটি দেশের মুদ্রার সাথে অন্য আরেকটি দেশের মুদ্রার মান (দাম) নিয়ে ট্রেড করা হয়। সহজে বুঝার জন্য ছোট্ট একটি উদাহরন দিচ্ছি-

মনে করেন আপনি কোন মাধ্যমে জানতে পারলেন যে আগামি ১৫-৩০ দিনের মাধ্যে মার্কিন ডলারের দাম বাড়তে পারে। আর সেই কারনে আপনি ৫০,০০০/= টাকার বিপরীতে কোন একটি মানি এক্সচেন্জার থেকে মার্কিন ডলার কিনে নিলেন। এখন এক মাস পর দেখলেন আপনার পাওয়া তথ্য অনুযায়ী মার্কিন ডলারের দাম বেড়ে গেছে। এখন আপানি সেই ডলার আবার কোনে এক মানি এক্সচেন্জারের কাছে গিয়ে বিক্রয় করে টাকা নিলেন। এখানে আপনি যে দুইবার লেনদেন করলেন তাই হচ্ছে ট্রেডিং। ততে আপনার লস হোক বা লাভ হোক।

ফরেক্স মার্কেেটে মার্কিন ডলারের বিপরীতে ইউরো, জাপনি ইয়েন, ব্রিটেইন পাউন্ড ইত্যাদি আরো অনেক দেশের মুদ্রা ট্রেড করা হয়। একেকটি ট্রেডিং প্লাটফর্মকে দুইটি মুদ্রা দ্বারা সাজানো হয়। যেমন- GBP/USD, USD/CAD, EUR/USD ইত্যাদি।

কোথায় ট্রেড করা হয়?

শেয়ার বাজারের ব্রোকার হাউজের মতো এখনেও ব্রোকার মার্কেট রয়েছে। ফরেক্স ট্রেডিং এর জন্য অনেক ব্রোকার রয়েছে। তবে অন্যান্য বিষয়ের মতো এখানেও ট্রাসটেড কথাটি প্রযোজ্য। কারণ এই জায়গাতেও অনেক আনট্রাসটেড/স্ক্যম ব্রোকার রয়েছে। যারা আপনাকে অনেক লোভনীয় অফার দিয়ে তাদের প্লাটফর্মে ট্রেড করার জন্য টানার চেষ্টা করে থাকে।

ফরেক্স মার্কেটে ট্রেড করার জন্য অবশ্যই আপনাকে একটি ট্রাসটেড এবং রেগুলেটেড ব্রোকার বেছে নিতে হবে, আর এর জন্য যারা অলরেডি দীর্ঘদিন যাবৎ ফরেক্স মার্কেটে ট্রেড করছেন তাদের থেকে পরামর্শ নিতে পারেন। ফরেক্স মার্কেট এর জন্য আমি কয়েকটি ট্রাসটেড, রেগুলেটেড এবং র‌্যাংকিং এর দিক থেকে প্রথম সারির দিকে আছে এমন কয়েকটি ব্রোকার এর নাম বলছি।

ট্রাসটেড এবং রেগুলেটেড ব্রোকার গুলো হচ্ছে:-

ফরেক্স ট্রেডিং একাউন্ট খোলার জন্য কি লাগে?

ফরেক্স ট্রেডিং একাউন্ট খোলার জন্য আপনার একটি ইমেল এড্রেস, মোবইল নাম্বার, এবং আপনার প্রকৃত ঠিকানা দিতে হয়। আর একাউন্ট খোলার পর তা ভ্যরিফাই করতে হয়। নতুবা আপনি আপনার একাউন্ট থেকে উইথড্র করতে পারবেন না।

একাউন্ট ভ্যরিফাই করতে তেমন কোন ঝামেলা নেই। এর জন্য প্রয়োজন আপনার ন্যাশলান আইডি কার্ড বা ড্রাইভিং লাইসেন্স বা পাসপোর্ট এবং ব্যাংক স্টেটমেন্ট অথবা যে কোন ধরনের ইউটিলিটি বিল (বিদ্যুৎ বিল, পানির বিল ইত্যাদি)। উল্লেক্ষিত ডকুমেন্ট গুলো স্ক্যান বা ছবি তুলে যে ব্রোকারে একাউন্ট খুলবেন সেখানে জমা দিলেই আপনার একাউন্ট ভ্যরিফাই হয়ে যাবে।

একাউন্ট ভ্যরিফাই হয়ে গেলে আপনি আপনার মতো করে ট্রেড শুরু করতে পারেন। তবে অবশ্যই ট্রেড করার আগে নিজেকে ট্রেডিং এর জন্য প্রস্তুত করে নিবেন। নতুবা আপনি আপনার সম্পূর্ণ ইনভেস্ট হারাতে পারেন।

বি.দ্র: ফরেক্স ট্রেডিং অনেক বেশি মাত্রাই ঝুকিপূর্ণ।

মন্তব্য