Bounty থেকে আয় করার উপায়।

Bounty কি? তা যদি আপনি না জেনে থাকেন, তবে তা জানতে আপনি এই পোষ্টটি পড়তে পারেন। আমি দীর্ঘদিন আগে বলেছিলাম Bounty থেকে কিভাবে আয় করা যায় তা নিয়ে একটি পোষ্ট দিব। সেই কথা রাখার জন্যই আজ এই পোষ্ট। আমি আগেই বলেছি Bounty এক ধরনের মার্কেটিং। আর আপনি এই Bounty থেকে কিভাবে আয় করতে পারেন সেই বিষয়ে আলোচনা করার চেষ্টা করবো।

Bounty করার জন্য যা প্রয়োজন

আপনি যদি Bounty থেকে আয় করতে চান তবে এর জন্য কিছু ওয়েবসাইটে আপনার একাউন্ট থাকা দরকার হবে। যেই সব সাইটে একাউন্ট থাকা প্রয়োজন তা হচ্ছেঃ-
১। বিটকয়েনটক (Bitcointalk) (ক্রিপ্টোকারেন্সি রিলেটেড, বিশেষত বিটকয়েন নিয়ে আলোচনা করার ফোরাম সাইট)
২। টুইটার (Twitter)
৩। ফেসবুক (Facebook)
৪। লিংকেডইন (LinkedIn)
৫। রেডিট (Reddit)
৬। স্টিমিট (Steemit)
৭। ইনস্ট্রাগ্রাম (Instragram)
৮। এবং একটি টেলিগ্রাম (Telegram)
উপরুক্ত সব গুলোই একটি একটি করে খুলে নিবেন। সবগুলো একসাথে প্রয়োজন না হলেও কোন না কোন সময় প্রয়োজন হবেই।

কিভাবে শুরু করবেন?

যেসব সাইটে একাউন্ট গুলো খোলার কথা বল্লাম, সেই সব সাইটে একাউন্ট খুলে পারত পক্ষে একটু পোষ্ট করার মাধ্যমে একটিভ থাকার চেষ্টা করবেন। কারন আপনার একটিভিটির উপর কাজের ফল নির্ভর করবে। যেমন বিটকয়েনটক ফোরামে আপনার র‌্যাঙ্ক বাড়া জরুরি একটি বিষয়। আর র‌্যাঙ্ক বাড়ার জন্য অবশ্যই পোষ্ট করার মাধ্যমে আপনাকে একটিভ থাকতে হবে। আপনি যত পোষ্ট করবেন ততই আপনার র‌্যাঙ্ক বাড়তে থাকবে। এই ভাবে রেডিট এ পোষ্ট/কমেন্ট করার ফলে “কারমা” বাড়ে। আর অধিকাংশ Bounty নির্দিষ্ট কারামার নিচে একাউন্ট হলে কাজের জন্য এলাউ করে না। সব মিলিয়ে প্রতিটি একাউন্টে পোষ্ট করা মধ্য দিয়ে একটিভ থাকুন।

কোথাই থেকে Bounty কাজ পাবেন?

Bounty কাজ পাবার জন্য আপনাকে বিটকয়েনটক ফোরামে যেতে হবে। সকল Bounty বিটকয়েনটক ফোরামেই পোষ্ট করা হয়।
Bitcoin Forum > Alternate cryptocurrencies > Marketplace (Altcoins) > Bounties (Altcoins)
বাউন্টি পেজের সরাসরি লিংকঃ- https://bitcointalk.org/index.php?board=238.0
এই সেকশনে যেসব পোষ্ট দেখতে পাবেন তার সবই Bounty কাজ।

কিভাবে Bounty বাছাই করবেন?

এখানে একটি কথা না বল্লেই নই। আপনি Bounty করবেন কিন্তু সব Bounty কাজেরই যে পেমেন্ট পাবেন তার কোন গ্যারান্টি নাই। বিভিন্ন ভাবে যাচাই বাছাই করে কোন Bounty কাজ করার জন্য সিলেক্ট করে কাজ শুরু করলেও তা ফেক বা ভুয়া প্রযেক্ট হতে পারে। তবে যাচাই বাছাই করে Bounty করলে ভুয়া Bounty হার কম হবার সম্ভাবনা থাকে।

যাইহোক, সব প্রযেক্টই তো আর ভুয়া হয় না। তবে কোন Bounty কাজ করার জন্য বাছাই করার পূর্বে সেই প্রযেক্ট গুগলে একটু সার্চ করে নিবেন। দেখবেন কতগুলো ICO রিভিউ সাইটে সেই প্রযেক্ট এ্যড রয়েছে। সেই প্রযেক্টের সোসাল সাইটগুলোতে একটিভিটি কেমন, প্রযেক্টের টিম মেমবার কারা ইত্যাদি বিষয়গুলো।

token review

Bounty -তে কি কাজ এবং কিভাবে করবেন?

Bounty তে কি কাজ এবং কিভাবে করবেন তা লিখার মাধ্যমে বলা একটু কষ্টসাধ্য, তবে তার একটু ধারনা দেয়া যেতে পারে। Bounty কাজ তেমন কোন জটিল কাজ নই বরং খুবি সহজ কাজ। তবে একটু বিষয়টি বুঝে নিতে হবে যে, আপনাকে কি করতে হবে এবং কিভাবে করতে হবে। আপনি কোন প্রযেক্টের Bounty করার জন্য বাছাই করলে, সেই Bounty পোষ্টেই সব কিছুই পরিস্কার করে বলা থাকবে আপনাকে কি কি কাজ করতে হবে। Bounty -তে যেধরনের কাজ থাকে তা হচ্ছেঃ-
১। টুইটারে রিটুইট, সেই সাথে কোন কোন Bounty তে বলা হয় নিজের থেকে সেই প্রযেক্ট সমন্ধে টুইট করা। যেটাকে বলা হয় Own Tweet অথবা কমেন্ট।
২। ফেসবুকে শেয়ার এবং সেই সাথে টুইটারে মতো নিজস্ব পোষ্ট অথবা কমেন্ট।
৩। লিংকেডইনে শেয়ার এবং একই পদ্ধতিতে নিজস্ব পোষ্ট অথবা কমেন্ট।
৪। স্টিমিটে আপভোট এবং রিস্টিমিট।
৫। ইনস্ট্রাগ্রামে লাইক এবং কমেন্ট।
৬। রেডিটে কমেন্ট, আপভোট এবং শেয়ার।
৭। বিটকয়েনটক ফোরামে সিগনেচার (সিগনেচার করার জন্য ফোরাম র‌্যাঙ্ক মিনিমাম Jr. memeber হওয়া লাগে)।
৮। আর্টিকেল।
৯।ট্র্যান্সেলেট।

একেক প্রযেক্ট একেক ধরনের কাজ চাইবে। তবে উপরের কাজের বাইরে নই। যেমন ধরেন কোন প্রযেক্ট হয়তো চাইবে টুইটারে রিটুইট করা আবার কোন প্রযেক্ট হয়তো শুধু টুইট চাইবে। আবার কোন প্রযেক্ট হয়তো কিছু রিটুইট এবং কিছু টুইট চাইবে। আসলে কোন প্রযেক্ট কি চাই তাদের Bounty পোষ্টেই বলা থাকবে এবং সেই অনুযায়ী আপনাকে কাজ করতে হবে। যে কাজ গুলো করবেন তা প্রতি সপ্তাহে জমা দিতে হবে। সেটা সেই Bounty পোষ্টে কমেন্ট করে অথবা গুগোলফর্মে (কিভাবে জমা দিতে হবে এবং সপ্তাহের কোন দিন জমা দিতে হবে তা Bounty পোষ্টেই উল্লেক্ষ করা থাকে)। মনে রাখবেন প্রতিটি প্রযেক্টের কাজের প্রূফ একই দিনে জমা হবে এমন কোন কথা নেই। যেমন কোন কোন প্রযেক্ট সপ্তাহের প্রতি রবিবার, কেউ বা মঙ্গলবার আবার কেউ বা সমবার আপনার সপ্তাহের কাজ গুলোর লিংক সাবমিট করার জন্য বলতে পারে।

Bounty থেকে কি পরিমান আয় করা যায়?

Bounty থেকে কি পরিমান আয় করতে পারবেন তা নির্দিষ্ট করে বলা সম্ভব নই। যার কারণে শুধু মাত্র দুই একটি প্রযেক্টের Bounty করেই বসে থাকবেন না। একসাথে যত বেশি সম্ভব Bounty করবেন। কোন প্রযেক্টের Bounty ৩ মাস করে ১০ ডলার পেতে পারেন। আবার কোন প্রযেক্টের Bounty ৩ সপ্তাহ কাজ করে ১০০ ডলার পেতে পারেন। তাই বলা মুসকিল যে, আপনি Bounty করে মাসে কত টাকা আয় করতে পারেন। তবে আপনি যদি কাজরে সাথে লেগে থাকেন তবে নিরাশ হবেন না। আমি Bounty করে যা পেয়েছি তা বল্লে বিশ্বাস করা কঠিন হবে। যাক সে সব কথা বাদ যাক। আপনার যদি কিছু ফ্রি সময় থাকে তবে সেই সময়টুকু Bounty করতে পারেন।

চেষ্টা করলাম অল্পের মধ্যে Bounty কাজ সম্পর্কে আলোচনা করার। যার ফলে অনেক কিছু বিষয় হয়তো ছাড়া পড়ে গেল। কারো কোন বিষয় জানার থাকলে কমেন্টের মাধ্যমে প্রশ্ন করতে পারেন।

বি:দ্রঃ- Bounty পেমেন্ট প্রতি মাসে মাসে পাবেন না। যে প্রযেক্টের Bounty করবেন তাদের ICO বা Token Sale শেষ হবার পর Bounty পেমেন্ট পাবেন। আর ICO বা Token Sale সেই সম্পর্কে সকল তথ্য যে প্রযেক্টের Bounty করবেন তাদের ওয়েবসাইটে পাবেন। অথবা Bounty পোষ্টেও ডিটেলস্‌ পেয়ে থাকবেন।

মন্তব্য