কিভাবে টুইটারের ফলোয়ার বাড়াবেন?

বর্তমানে বিশ্ব জুড়ে সোসাল মিডিয়ার ছড়া-ছড়ি। একটি পরিসংখ্যানে দেখানো হয়েছে ২০১৮ সালে সোসাল মিডিয়া ব্যবহার কারীর সংখ্যা ২.৬২ বিলিয়ন, যা বাংলাই হিসেব করলে হয়, ২,৬২০,০০০,০০০/= যা ২০১৯ সালে ২.৭৭ বিলিয়ন এ গিয়ে পৌছাবে বলে ধারনা করা হচ্ছে। আমরা সোসাল মিডিয়ার ইউজারদের নিয়ে একটি দেশে গড়ার কথা চিনতা করলে; দেখা যাবে, এর চাইতো আর কোন দেশের জনসংখ্যা বেশি না।

আর বিশ্ব জুড়ে ১০৫+ সোসাল মিডিয়া রয়েছে। আর এর মধ্যে হাতে-গনা কয়েকটি সোসাল মিডিয়ার সাথে আমরা পরিচিত। বিশেষ করে ফেসবুক, টুইটার, ইউটিউব ইত্যাদি এই গুলি আমাদের খুবই পরিচিত।

আমাদের বাংলাদেশে ফেসবুক ইউজারদের সংখ্যাই বেশি। তবে অল্প কিছু সংখ্যক ইউজার আছেন যারা টুইটার, ইউটিউব, ইনস্ট্রাগ্রাম ইত্যাদি ব্যবহার করে থাকেন। এর পরেও যারা ব্যবহার করেন তাদের হয়তো ফলোয়ার কম থাকায় ব্যবহার করে মাজা পান না। কারন টুইটার ফেসবুকের মতো নয় যে, আপনি যাকে ফ্রেন্ড হিসেবে যোগ করলেন সে আপনার স্ট্যাটাস বা আপনি তার স্ট্যাটাস দেখতে পারবেন! এখানে একটু ভিন্ন বিষয়, যে আপনাকে ফলো করবে সে আপনার স্ট্যাটাস দেখতে পারবে তার হোম পেজে। বিষয়টি ঠিক আরো সহজ করে বলতে গেলে এটি ঠিক ফেসবুক ইউজার একাউন্ট নয়, ফেসবুক পেজের মতো সিস্টেম। আর সেই জন্য অনেকেই টুইটারে ফলোয়ার বাড়ানো পদ্ধতি খুজে থাকেন।

টুইটার বাড়ানোর জন্য অামরা অনেকেই হয়তো অন্য কোন টুইটার ইউজারদের ফলো করে থাকি এই আশাই যে, যাকে ফলো করা হলো সেও হয়তো আমাকে ফলো করবে। অবশ্য এটি ভুল ধারনা না, মোটামুটি এই রকম হয়েই থাকে। তবে খুব ধীরে গতিতে। টুইটারে ফলোয়ার বাড়ানোর গতিকে একটু দ্রুত করার জন্য নিম্নক্ত পদ্ধতি গ্রহন করতে পারেন।

যেভাবে টুইটারে ফলোয়ার বাড়াবেন?

টুইটারের ফলোয়ার বাড়ানোর জন্য আপনার টুইটার একাউন্ট ছাড়াও ইউটিউব, ফেসবুক, ইনস্ট্রাগ্রাম, পিনটারেস্ট ইত্যাদি একাউ্ন্ট প্রয়োজন হবে। না থাকলে করে নিতে পারেন, এতে করে টুইটারে কম ফলোইং করে আপনার ফলোয়ার বাড়ানো সহজ হবে।

আপনার যদি উপরুক্ত সোসাল সাইটের একাউন্ট গুলো রেডি হয়ে থাকে তবে আপনি ইউলাইক এবং লাইকফরলাইক এই দুইটি সাইটে সাইনআপ করে একাউন্ট খুলুন। একাউন্ট খোলা সম্পূর্ণ হয়ে গেলে আপনি এই দুইটি সাইট ব্যবহার করে আপনার টুইটারের ফলোয়ার বাড়াতে পারবেন খুব সহজেই।

ইউলাইকে যেভাবে কাজ করবেন?

এখানে আপনার টুইটারের ফলোয়ার বড়ানো জন্য পয়েন্টের প্রয়োজন। আর পয়েন্ট করতে হলে আপনার কাছে দুইটি পথ আছে, এর মধ্যে একটি হলো পয়েন্ট কিনে নেওয়া, আর দ্বিতীয়টি হচ্ছে কাজ করে পয়েন্ট বাড়ানো। কাজ বলতে তেমন কোন জটিল কাজ নয়। আপনি যে ইউটিউব, পিন্টারেস্ট ইত্যাদির একাউন্ট করেছিলেন তা ব্যবহার করে পয়েন্ট করতে পারেন। উদাহরন হিসেবে:- পয়েন্ট করার জন্য Earn Points নামে যে অপশনটি আছে সেখান থেকে Youtube –> Subscribers এ যান। এইখানে গিয়ে নিম্নের ছবির মত দেখতে পাবেন।

এখন যেকোন একটি Subscirbe বাটনে ক্লিক করলে নিম্নের ছবিটির মতো করে আপনাকে দেখাবে।

এখন আবার Subscribe to (username) বাটনে ক্লিক করলে নুতুন একটি পপআপ উইনডো ওপেন হবে যেখানে ইউটিউব ইউজারের লিংকটি ওপেন হবে। এখন, এখানে আপনি Subscribe বাটনে ক্লিক দিয়ে সেই ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করবেন। তারপর উইনডোটি ক্লজ করে দিবেন। সঠিকভাবে সাবস্ক্রাইব হলে আপনার পয়েন্ট যোগ হয়ে যাবে এবং অটোমেটিক নতুন আরেকটি চ্যানেল লোড হবে সাবস্ক্রাইব অপশনে। এইভাবে একটির পর একটি আসবে আর সেই গুলো আপনি সাবস্ক্রাইব করতে থাকলে পয়েন্ট যোগ হতে থাকবে।

কিভাবে আপনার টুইটার একাউন্ট যোগ করবেন?

উপরের নিয়ম অনুযায়ী তো আপনি আপনার পয়েন্ট বাড়াবেন। কিন্তু এখন প্রশ্ন, আপনার টুইটারের ফলোয়ার বাড়বে কিভাবে? আপনার টুইটারের ফলোয়ার বাড়ানোর জন্য আপনার টুইটার প্রফাইল লিংকটি এখানে যোগ করে দিতে হবে। এর জন্য Add/Edit sites–> Twitter–> Followers অপশনে যান, এখানে নিম্নের ছবির মত দেখতে পাবেন।

এখানে খালি বক্সে আপনার টুইটার ইউজারনেম দিয়ে Add Twitter এ ক্লিক করুন। ঠিকঠাক মত করতে পারলে নিম্নের ছবির মত আপনার টুইটারের ইউজারনেম দেখতে পাবেন।

উপরের ছবিতে আপনি যে 6 Points লিখা দেখতে পাচ্ছেন, তা আপনি কমাতে বা বাড়াতে পারবেন। এই পয়েন্টস্‌ এর অর্থ হচ্ছে আপনি একটি ফলোয়ার পেতে কত খরচ করতে চাচ্ছেন।

লাইকফরলাইকে কিভাবে কাজ করবেন?

আপনি যদি ইউলাইকে উপরের কাজগুলো সঠিকভাবে করতে পারেন তবে এখানে কাজ করতে আপনার সমস্যা হবে না। এখানেও একই নিয়মে কাজ হয়। শুধু অপশন গুলোর নাম একটু ভিন্ন, এছাড়া অন্য কোন বিষয় না।

লাইকফরলাইকে লগিন করার পর Social media exchange নামের অপশন থেকে আপনাকে পয়েন্ট তৈরি করতে হবে। আর Add and Manage page অপশনে গিয়ে আপনার টুইটারের ফলোয়ার পাবার জন্য Twitter Follows অপশনে গিয়ে আপনার টুইটার প্রফাইলটি যোগ করে নিতে হবে।

লাইকফরলাইক থেকে আপনি ফেসবুক, ইউটিউব ইত্যাদি পেজের লাইকও বাড়াতে পারেন। এই ধরেনের আরো বেশকিছু সাইট আছে কিন্তু সেইগুলো একটু ধীর গতির। ঐগুলো ব্যবহার করে ভাল ফলাফল পাইনি, তাই সেগুলো এখানে দিলাম না। উপরের দুইটি সাইট ব্যবহার করে দেখেন আশা করি ভাল ফলাফল পাবেন।

মন্তব্য